শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪৬ অপরাহ্ন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভবন ও স্থাপনার অবস্থান

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভবন ও স্থাপনার অবস্থান

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেট পেরিয়ে গোল চত্বর। এখানে শায়িত ১৯৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানের শহীদ ড. মুহম্মদ শামসুজ্জোহা। সামনে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবন। এর নিচতলায় জনসংযোগ দপ্তর, বিশ্ববিদ্যালয় আরকাইভস, প্রক্টর এবং ছাত্র উপদেষ্টা দপ্তর, তথ্য সেল, একাডেমিক শাখার একাংশ, অডিট সেল, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের একাংশ, টেলিফোন শাখা; দোতলায় উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ ও রেজিস্ট্রার দপ্তর, সংস্থাপন শাখা-১, অর্থ ও হিসাব দপ্তর, লিগ্যাল সেল, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন দপ্তর। তেতলায় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তর, কলেজ পরিদর্শকের দপ্তর ও সংস্থাপন শাখা-২।

শহীদ ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী প্রশাসন ভবন : কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পশ্চিমে এই ভবনে প্রকৌশল দপ্তর, এস্টেট শাখা, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের বিল শাখা, একাডেমিক শাখার একাংশ, কেন্দ্রীয় ভা-ার, প্রকাশনা দপ্তর এবং পরিকল্পনা ও উন্নয়ন দপ্তর অবস্থিত। এই ভবনের পাশে অগ্রণী ব্যাংক বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ও এটিএম বুথ রয়েছে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগার : শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের উত্তর-পশ্চিমে মনোরম স্থাপত্যসমৃদ্ধ দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম গ্রন্থাগার। দোতলায় ইস্যু কাউন্টার, ক্যাটালগ ও পাঠকক্ষ, তেতলায় গ্রন্থাগার অফিস, সংবাদপত্র পাঠকক্ষ, সিরিয়ালস ও রিপ্রোগ্রাফি শাখা, কম্পিউটার সেল, ডিসকাস রুম। এটি একটি ওয়াই-ফাই জোন।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবন : আধুনিক মাল্টিমিডিয়া ও অডিও-ভিজ্যুয়াল সিস্টেম এবং ওয়াই-ফাই সুবিধাসহ ২০৬ আসনবিশিষ্ট শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই ভবন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থিত। এখানে রয়েছে পরিষদ শাখা।

শহীদ মিনার কমপ্লেক্স : এখানে আছে বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনার, শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা, দু’টি ম্যুরাল ও উন্মুক্ত মঞ্চ। এটি একটি ওয়াই-ফাই জোন।

সাবাস বাংলাদেশ : মুক্তিযুদ্ধের এ স্মারক ভাস্কর্যটি শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনের দক্ষিণ চত্বরে অবস্থিত। শিল্পী নিতুন কুণ্ডুর তৈরী এই ভাস্কর্যের পাদদেশে একটি মুক্ত মঞ্চ আছে।

বিদ্যার্ঘ : মুক্তিযুদ্ধকালে শহীদ গণিত বিভাগের শিক্ষক হবিবুর রহমান স্মরণে এ স্মারকসৌধটির অবস্থান শহীদ হবিবুর রহমান হল চত্বরে।

স্ফূলিঙ্গ : ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে শহীদ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. শামসুজ্জোহা স্মরণে এ ভাস্কর্যটি শহীদ শামসুজ্জোহা হল প্রাঙ্গণে অবস্থিত।

বধ্যভূমি স্মৃতিস্তম্ভ : একাত্তরের বধ্যভূমিতে এ স্মৃতিস্তম্ভটি ক্যাম্পাসের উত্তর-পূর্ব প্রান্তে, জোহা হলের পূর্বে।

সুবর্ণ জয়ন্তী টাওয়ার : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সুবর্ণ জয়ন্তী স্মারক টাওয়ার প্রধান ফটক পেরিয়ে সড়ক দ্বীপের ডানে, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবন এর সামনে গোল চত্বরের দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত।

রাকসু ভবন : শহীদ মিনারের উত্তরে এ ভবনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (রাকসু) অফিস।

শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র : সত্যেন্দ্রনাথ বসু একাডেমিক ভবনের পূর্বে অবস্থিত। এখানে একটি বহুমুখী ব্যবহারযোগ্য মিলনায়তন এবং নাটক ও গানের মহড়াকক্ষ আছে।

কেন্দ্রীয় কাফেটেরিয়া : রাকসু ভবনের পূর্বে ও শহীদ মিনারের উত্তর-পূর্বে কেন্দ্রীয় কাফেটেরিয়া। এখানে নাস্তা ও দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা আছে।

বিজ্ঞান কারিগরী ওয়ার্কশপ : রাকসু ভবনের উত্তর পাশে। এখানে বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়।

কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তন : আধুনিক শব্দ ও আলোক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাসজ্জিত এই মিলনায়তন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের উত্তর-পূর্ব দিকে।

বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্র : ক্যাম্পাসের পূর্ব এলাকায় বিনোদপুর গেটের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত চিকিৎসা কেন্দ্রে সাধারণ বিভাগ, প্যাথলজি, এক্স-রে, ইসিজি, আই, ডেন্টাল ও পরিবার পরিকল্পনা ইউনিট রয়েছে ।

বিএনসিসি ভবন : প্রধান গেটের পাশে এ চত্বরে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর-বিএনসিসি অফিস ও প্রশিক্ষণ মাঠ অবস্থিত। চত্বরের প্রবেশ মুখে এটিএম বুথ আছে।

পরিবহন ভবন : শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের উত্তরে পরিবহন অফিস। এখানে বিশ্ববিদ্যালয় বাস স্ট্যান্ড।

শেখ কামাল স্টেডিয়াম : সত্যেন্দ্রনাথ বসু একাডেমিক ভবন ও ড. মুহম্মদ কুদরাত-এ-খুদা একাডেমিক ভবনের পূর্বে স্টেডিয়ামে রয়েছে শরীরচর্চা শিক্ষা বিভাগ, রোভার ¯কাউট অফিস ও ডাকঘর। স্টেডিয়ামের পূর্ব দিকে জিমনেসিয়াম, সুইমিং পুল, টেনিস কমপ্লেক্স ও বাস্কেটবল কোট, স্টুয়ার্ড শাখা, এস্টেট শাখা ও কৃষি প্রকল্পের অফিস।

জুবেরী ভবন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য ইৎরাত হোসেন জুবেরীর নামানুসারে এই অতিথি ভবনটি ক্যাম্পাসের পশ্চিম এলাকায়, কাজলা গেটের উত্তরে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাব এই ভবনে অবস্থিত। এটি একটি ওয়াই-ফাই জোন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল : কাজলা গেটের পাশে স্কুল ভবন। এ স্কুলে প্রথম শ্রেণি থেকে উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণি পর্যন্ত পাঠদান করা হয়। নির্মিতব্য শেখ রাসেল মডেল স্কুল ভবন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের সামনে পূর্ব পাশের রাস্তার পূর্বে জুবেরী ভবন মাঠের দক্ষিণাংশে।

কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ : শহীদ মিনারের দক্ষিণে অবস্থিত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদটি সুপরিসর ও মনোরম তুর্কী স্থাপত্যশৈলী সমৃদ্ধ।

কেন্দ্রীয় মন্দির : বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রের সামনে ও বিশ্ববিদ্যালয় সুইমিং পুলের দক্ষিণে কেন্দ্রীয় মন্দির অবস্থিত।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাপাখানা : কেন্দ্রীয় মন্দিরের পাশে বিশ্ববিদ্যালয় ছাপাখানা অবস্থিত। এখানে আধুনিক অফসেট পদ্ধতিতে মুদ্রণসহ আনুষঙ্গিক ব্যবস্থাদি আছে।

বরেন্দ্র রিসার্চ মিউজিয়াম : ১৯১০ সালে প্রতিষ্ঠিত দেশের সর্বপ্রাচীন প্রত্নসামগ্রীর সংগ্রহশালা-বরেন্দ্র রিসার্চ মিউজিয়াম বঙ্গীয় শিল্পকলার বিপুল ও বর্ণাঢ্য সংগ্রহের জন্য সারা বিশ্বে পরিচিত। রাজশাহী শহরে অবস্থিত, বাংলাদেশের সুপ্রাচীন ইতিহাস ও ঐতিহ্যের স্মারক এই জাদুঘরটি ১৯৬৪ সাল থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করে আসছে।

সূত্র: নবীন শিক্ষার্থীদের জন্য তথ্যকণিকা ২০১৮-২০১৯, পৃ. ৫-৭


Share this post in your social media

© VarsityNews24.Com
Developed by TipuIT.Com