সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৪৭ অপরাহ্ন

তথ্য প্রযুক্তিতে জামসেদ হোসেন টিপুকে ক্রেস্ট ও সম্মাননা প্রদান

তথ্য প্রযুক্তিতে জামসেদ হোসেন টিপুকে ক্রেস্ট ও সম্মাননা প্রদান

এনবিআইইউ প্রতিনিধি : নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ২০ ফেব্রুয়ারি সপ্তাহব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলার দ্বিতীয় দিনে ‘তথ্য প্রযুক্তিতে অসামান্য দক্ষতার স্বীকৃতিস্বরূপ’ ইউনিভার্সিটির আইটি অফিসার জামসেদ হোসেন টিপুকে ক্রেস্ট, শুভেচ্ছা স্মারক ও সনদ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক সম্পাদিত ‘ছায়াতলে গড়েছি বসতি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। ইউনিভার্সিটির কনফারেন্স রুমে বিকেল সাড়ে ৩টায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনবিআইইউ’র উপাচার্য বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও গবেষক এবং সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্রের প্রধান পৃষ্ঠপোষক প্রফেসর ড. আবদুল খালেক। কবি ও নারীনেত্রী ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি অধ্যাপিকা রাশেদা খালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন পাবনা এ্যাডওয়ার্ড কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও বর্তমান এনবিআইইউ’র ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর আব্দুর রউফ। আলোচনা করেন নিউ গভ. ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ফরিদা সুলতানা। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এনবিআইইউ’র উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহম্মদ আবদুল জলিল।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ড. আবদুল খালেক বলেন, বই জ্ঞানের সমুদ্র। ছাত্ররা বেশি বেশি জ্ঞান চর্চা করবে। বই পড়ার মাধ্যমে দেশ এবং জাতিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। সভাপতি অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক বলেন, স্বীকৃতি এবং প্রাপ্তি মানুষকে কর্মক্ষম, সাহসী এবং উদ্যোগী করে তোলে। তেমনি এক গুণি ব্যক্তিকে সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্র থেকে গুণি সংবর্ধনা দিতে পারায় আমরা গর্বিত। আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটির কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. ওয়াজেদ আলী, আইন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. হাবিবুর রহমান এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকসহ সকল বিভাগের কো-অর্ডিনেটর, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বাংলা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর এবং সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক ড. নূরে এলিস আকতার জাহান। সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলা বিভাগের প্রভাষক হাসান ঈমাম সুইট।

তথ্য প্রযুক্তিতে অসামান্য দক্ষতার অধিকারী জামসেদ হোসেন টিপু জন্মগ্রহণ করেন ১৯৮৩ সালে কুমিল্লা জেলার সাইচাপাড়া গ্রামে। বাবা মরহুম মোসলেম উদ্দিন এবং মা মরহুমা রেনুয়ারা বেগম। জামসেদ হোসেন টিপুর শিক্ষাজীবন শুরু তার গ্রামের সাইচাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বাড়ির কাছাকাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থাকা সত্বেও প্রায় অনেক দূরে ঐতিহ্যবাহী গঙ্গামন্ডল রাজ ইনস্টিটিউশন হাইস্কুলে তিনি পড়ালেখা করেন। বাবার মৃত্যুর পর তিনি ২০০১ সালে রাজশাহীতে আসেন। বিভিন্ন সমস্যার মধ্যেও তিনি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। জামসেদ হোসেন টিপু ২০০৩ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা ও সঙ্গীত বিভাগে অস্থায়ীভাবে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে চাকুরি করেন। চাকুরি স্থায়ী না হওয়ায় স্বেচ্ছায় সেটা ছেড়ে দেন। তিনি কম্পিউটারের উপর সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন ধরনের ট্রেনিং গ্রহণ করে কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়েছেন। এরই মধ্যে ঢাকার দুটি প্রতিষ্ঠানে ‘আউটসোর্সিং এন্ড ফ্রিল্যান্সিং’ এবং ‘ক্যাম্পাস নেটওয়াকিং’ বিষয়ক ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করে পুরস্কৃত হন। গবেষক এবং লেখক মহলে কম্পিউটারে তার কাজের সুখ্যাতি ও ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে রক্ষিত বহু এম.ফিল./পিএইচ.ডি. গবেষকদের একশত’রও অধিক থিসিস এবং অনার্স ও মাস্টার্স কোর্সের কয়েক হাজারেরও অধিক রিপোর্ট/থিসিস পেপার তার হাতেই কম্পোজ হয়েছে। অনেক ছোটগল্প ও জার্নালের শুরুটাও তার কাছ থেকেই করা। ফোকলোর জার্নাল, থিয়েটার জার্নাল, মিউজিক জার্নাল, নিরিখ, ধ্রুব, চিহ্ন, স্নান, গল্পকথা, ঘাম, লোকভূমি সহ নাম না জানা অনেক এ রকম আরো বহু বইও তার হাত দিয়েই করা হয়েছে।

তিনি ভালো প্রচ্ছদ ডিজাইনও করেন। তার কাজের পরিধি ব্যাপক যেমন- গ্রাফিক্স ডিজাইন: ফটোশপ, ইলেস্ট্রেটর, কোয়ার্ক এক্সপ্রেস; এনিমেশন: গিম্প, এডোবি ফ্ল্যাস; ভিডিও এডিটিং: এডোবি প্রিমিয়াম; ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট: এইচটিএমএল, সিএসএস, এক্সএমএল, পিএইচপি, মাইএসকিউএল; অপারেটিং সিস্টেম: উইন্ডোজ ৯৫, ৯৭, ২০০০, এক্সপি, ভিসতা, সেভেন, এইট, টেন; লিনাক্স: উবুন্টু; অফিস প্রোগ্রাম: এমএস ওয়ার্ড, এমএস এক্সেল, এমএস পাওয়ারপয়েন্ট, এমএস পাবলিশিং, এমএস একসেস; নেটওয়ার্কিং: ল্যান, ম্যান, ওয়ান, সুইচ, মাইক্রোটিক রাউটার কনফিগার ও মেইনটেনেন্স; হার্ডওয়্যার এন্ড ট্রাবলশুটিং; ডোমেন এন্ড হোস্টিং সেলস; ওয়েব সার্ভার এন্ড সিপ্যানেল মেইনটেনেন্স; স্কুল ম্যানেজমেন্ট সফটওয়ার সহ বহু ওয়েবসাইট মেইনটেন করেন তিনি।

সদা হাস্যজ্জ্বল মুখশ্রীর এই মানুষটির কর্তব্যবোধ, দায়িত্ব জ্ঞান, সময়নিষ্ঠা অনুস্মরণীয় দৃষ্টান্ত। সততা, কর্মদক্ষতা ও বিনয় সব মিলিয়ে জামসেদ হোসেন টিপু একজন অসাধারণ ব্যক্তিমানুষ।


Share this post in your social media

© VarsityNews24.Com
Developed by TipuIT.Com