সোমবার, ১০ মে ২০২১, ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন

এনবিআইইউর রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সোহেলী আক্তারের বিদায় সংবর্ধনা

এনবিআইইউর রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সোহেলী আক্তারের বিদায় সংবর্ধনা

এনবিআইইউ প্রতিনিধি : শিক্ষকগণ ছাত্রদের ভিতরের সম্ভাবনা আবিস্কার করেন। এটিই একজন প্রকৃত শিক্ষকের অভিলক্ষ। নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (এনবিআইইউ) রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সোহেলী আক্তারের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমনই অভিমত ব্যক্ত করেন প্রধান অতিথি এনবিআইইউ’র ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক। রোববার বেলা ১১টায় রাজশাহী নগরীর আলুপটিস্থ ইউনিভার্সিটির একাডেমিক ভবনের কনফারেন্স রুমে বিভাগের ডেমোক্রেসি প্র্যাকটিস সেন্টারের উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক আরও বলেন, সোহেলীর বিদায় আনন্দের। বৃহত্তর জীবন তাঁকে ডাকছে। তার লেখা সাহিত্যের আকর। সাহিত্যের সম্পদ। তাঁকে আর্শিবাদ। চমৎকার মনের মেয়ে সোহেলী। বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার তাঁকে আজীবন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে। বিদায় দিলেও এই বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর পাঠদানের দ্বার উন্মোক্ত রইল। শেকড়ের টানে বার বার আসুক এখানে এই প্রত্যাশা করেন তিনি।  অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক এনবিআইইউ’র উপাচার্য বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, গবেষক ও কলামিস্ট প্রফেসর ড. আবদুল খালেক নিজের লেখা বই ‘অমিয় আনন্দ ধ্বনি’ উপহার দেন। তিনি বলেন, মানুষের অন্তরের স্পর্শ থেকে যে কথাগুলো বের হয় সেটাই চরম সত্য।  ছাত্ররা অন্তর থেকে যে কথাগুলো বললেন, তাতে সোহলীর জনপ্রিয়তা বুঝা যায়। সোহেলী আক্তার ছাত্রদের সন্তান ভাবতেন। এটা একজন শিক্ষের মহৎগুন। ছাত্ররা যেন যাদুকর। বিদায়ীদের টেনে ধরে রাখে। সোহেলী সকলের হৃদয় ও মনকে জয় করার ভেতর তা প্রমাণিত হলো।
অনুষ্ঠানের সভাপতি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের কো-অর্ডিনেটর ও ছাত্র উপদেষ্টা ড. মো. হাবিবুল্লাহ বলেন, দায়িত্ববোধ, কর্তব্যবোধ, একনিষ্ঠতা সবই আছে সোহেলীর। সহশিক্ষামূলক কার্যক্রমে তিনি থাকতেন মডারেটর এবং প্রতিযোগিতার বিচারক হয়ে। আজ তাকে শুধুই দায়িত্ববোধ থেকে বিদায় জানানো। মন থেকে নয়। আমরা তার কাছে ঋণী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, এনবিআইইউ’র উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. আবদুল জলিল। প্রভাষক মনজুরুল ইসলামের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রক্টর ড. মো. আজিবার রহমান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ জোনাব আলী, শিক্ষক কামরুন্নাহার, ড. নাসরিন লুবনা, স্বপ্না খাতুন, আফরোজা আক্তার এ্যানি, জনসংযোগ দপ্তরের সহকারি পরিচালক জনাব আলী, লাইব্রেরি অফিসার সুমাইয়া মেহজাবিন প্রমুখ। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শামীম হোসেন, মোস্তাক আহম্মেদ, আবদুল গাফ্ফার, জাহাঙ্গীর প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সোহেলী আক্তারকে শিক্ষক,কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে সম্মাননা জানানো হয়। সোহেলী আক্তার বর্তমানে নাটোরের নবাব সিরাজ উদ-দৌলা (এনএস) সরকারি কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে শিক্ষকতা করছেন।


Share this post in your social media

© VarsityNews24.Com
Developed by TipuIT.Com