শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দালালদের আধিপত্য

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দালালদের আধিপত্য

রামেক প্রতিনিধি : রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দালালদের আধিপত্য দিন দিন বেড়েই চলেছে। দিনে মেডিকেল রিপ্রেজেনটেটিভ এবং রাতে ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসির দালালদের প্রতারণা সব কিছু মিলিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও স্বজনরা পড়েন চরম ভোগান্তিতে। হাসপাতাল থেকে ডাক্তারের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য রিপ্রেজেনটেটিভদের নির্দিষ্ট সময় উল্লেখ করা আছে। অথচ রিপ্রেজেনটেটিভরা উল্লিখিত সময়ের বাইরেও ডাক্তারদের সঙ্গে সাক্ষাত করে। রাতে দালালরা রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে প্রেসক্রিপশন নিয়ে নির্দিষ্ট ঔষুধের দোকান থেকে উচ্চমূল্যে ঔষুধ কিনে এনে দেয়। রোগীরা না চাইলে তারা নিজেরা হাসপাতালের স্টাফ পরিচয় দিয়ে রোগীর স্বজনদের প্রতারণা করে ফার্মেসির কাছ থেকে কমিশন নিয়ে রোগীদের নিকট থেকে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নেন। তাদের সঙ্গে যোগাযোগ আছে প্রতিটি ওয়ার্ডের বয় ও আয়ার। এরাই ডাক্তারদের কাছ থেকে প্রেসক্রিপশন নিয়ে দালালদের কাছে পৌঁছায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখকে ফাঁকি দিয়ে হাসপাতালের ওয়ার্ড বয় ও আয়াদের সহযোগিতায় দালালরা তাদের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। হাসপাতালে রাতে ৭/৮ জন দালাল কাজ করে। তাদের আশেপাশে অবস্থিত কিছু ফার্মেসির সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। সেখানে তারা কমিশনের ভিত্তিতে কাজ করে। প্রেসক্রিপশন নিয়ে গেলে ফার্মেসির মালিকরা রোগীর কাছ থেকে উচ্চমূল্যে ঔষুধের দাম নেয়। তারা রোগীর স্বজনদের পরিচয় দেয় হাসপাতালের স্টাফ বলে। হাসপাতালে চিকিৎসা ভালো হয় না বলে কম খরচে ভালো চিকিৎসা দেওয়া হবে তা বলে রোগীদের বাইরের ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করায়। এছাড়া হাসপাতালের বহির্বিভাগে বিভিন্ন ঔষুধ কোম্পানির রিপ্রেজেনটেটিভরা রোগীর স্বজনদের নানাভাবে হয়রানি করে। রোগীদের দীর্ঘ সারি থাকা সত্ত্বেও ডাক্তারদের চেম্বারে তারা দেখা করে। রোগীরা ডাক্তারের চেম্বার থেকে প্রেসক্রিপশন নিয়ে বের হলে প্রেসক্রিপশন নিয়ে কাড়াকাড়ি শুরু করে দেয়। এতে ভোগান্তির শিকার হন চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা।


নিউজটি অন্যকে শেয়ার করুন...

আর্কাইভ

business add here
© VarsityNews24.Com
Developed by TipuIT.Com