শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন

নূসরাত জাহান রাইসা গেট ইন দ্যা রিং চ্যাম্পিয়ন

নূসরাত জাহান রাইসা গেট ইন দ্যা রিং চ্যাম্পিয়ন

ডিআইইউ প্রতিনিধি : ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ২য় বারের মত অনুষ্ঠিত হলো ‘গেট ইন দ্যা রিং-২০১৮’ এর গ্র্যান্ডফিনালে। এবারের বিজয়ী আর্কেড ফাউন্ডেশনের নূসরাত জাহান রাইসা। তিনি ২৯ মে পর্তুগালে গ্লোবাল মিট আপে চূড়ান্ত পর্বে প্রতিযোগিতার সুযোগ পাবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইঁয়া। ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পমা. শফিকুল ইসলাম। বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি ডিভিশনের স্টার্টআপ বাংলাদেশ এর বিনিয়োগ উপদেষ্টা মিস টিনা জেবিন, মসলিন ক্যাপিটালের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ওয়ালি উল-মারুফ মতিন, বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন ফর লার্নিং এন্ড ডেভেলাপমেন্টের সভাপতি কাজী এম আহমেদ ও বাংলাদেশ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম মনওয়ার কামাল। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন স্বনামধন্য কোম্পানির মালিক এবং সিইওবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

২১ এপ্রিল ডিআইইউর স্থায়ী ক্যাম্পাসে ব্যাটেলের মাধ্যমে ৩৫৮টি দল থেকে ১২টি দল চূড়ান্ত পর্বের জন্য নির্বাচিত হয়। এরপর ১২টি দল থেকে নির্বাচন করে ফাইনালে আর্কেড ফাউন্ডেশনের নূসরাত জাহান রাইসা চ্যাম্পিয়ান হয়ে গ্লোবাল মিট আপের (ফাইনাল) জন্যে পর্তুগালের টিকেট জয় লাভ করেন। চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, আহসানউল্লাহ ইউনভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি, ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলাপমেন্ট অল্টারনেটিভ, দি ইউনিভার্সিটি অব এপ্লাইড সায়েন্স, জার্মানী এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সহ ১২টি দল অংশগ্রহণ করে।

প্রধান অতিথি বলেন, বাংলাদেশ একটি অপার সম্ভাবনাময় দেশ। এদেশের তরুণদের রয়েছে অসামান্য উদ্ভাবনী মেধা। দেশের আনাচে কানাচে যেসব উদ্যোমী তরুণ চমৎকার সব ব্যবসায়িক ধারনা নিয়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে, তাদেরকে খুঁজে বের করবে গেট ইন দ্যা রিং প্রতিযোগিতা। গেট ইন দ্যা রিং বাংলাদেশে একটু নতুন ধারনা। এই নতুন ধারনার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য ড্যাফোডিল পরিবারকে ধন্যবাদ জানান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইঁয়া। তিনি আরও বলেন, আমাদের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি তরুণ। তারা ছোট ছোট বিভিন্ন ব্যবসায়িক উদ্যোগ গ্রহণ করে ইতিমধ্যে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে বদলে দিয়েছে। এই তরুণদেরকে সঠিক দিক-নির্দেশনা দিতে পারলে ও যথাযথ যতœ নিতে পারলে খুব দ্রুতই তারা বাংলাদেশেকে বিশ্বের বুকে একটি উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করবে। এসময় মো. মোশাররফ হোসেন ভূইঁয়া তরুণ উদ্যোক্তাদের যথাযথ আইন কানুন মেনে ব্যবসা করার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, সৎ উপায়ে আইন মেনে ব্যবসা করলে ব্যবসায় দ্রুত উন্নতি লাভ সম্ভব।

সভাপতির বক্তব্যে ডিআইইউর ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুর খান বলেন, দেশে নতুন নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টির লক্ষ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির এন্ট্রাপ্রিনিউরশীপ বিভাগ নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছে এবং সবসময় প্রয়োজনীয় মনিটরিং ও পরামর্শ দিয়ে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজকের এ আয়োজন। তিনি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের দৃঢ় মনোবল ও আস্থা নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে শক্ত নেটওয়ার্ক তৈরির আহ্বান জানান।


নিউজটি অন্যকে শেয়ার করুন...

আর্কাইভ

business add here
© VarsityNews24.Com
Developed by TipuIT.Com